বিনিয়োগ করার আগে যে বিষয়গুলো বিবেচনা করতে হবে

বিনিয়োগ করার আগে যে বিষয়গুলো বিবেচনা করতে হবে

বিনিয়োগ আপনার আর্থিক সাফল্যের দরজা খুলে দিতে পারে। খারাপ বিনিয়োগও আর্থিক পতনের দিকে নিয়ে যেতে পারে। তাই বিজ্ঞতার সাথে বিনিয়োগ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই নিবন্ধে বিনিয়োগ করার আগে বিবেচনা করা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানুন।

আর্থিক অবস্থা পরীক্ষা করুন

আপনি বিনিয়োগ করার আগে, আপনার পছন্দ, অগ্রাধিকার, জীবনধারা পছন্দ, আয় ইত্যাদির উপর ভিত্তি করে আপনার আর্থিক পরিস্থিতির মূল্যায়ন করুন। বিনিয়োগ করার সময় আপস করতে হবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু যদি আপনাকে বিনিয়োগের জন্য আপনার নিয়মিত ব্যয়ের সাথে ব্যাপকভাবে আপস করতে হয়, তবে জেনে রাখুন যে আপনি আপনার সাধ্যের বাইরে বিনিয়োগ করবেন, যা আপনার অবশ্যই করা উচিত নয়। আপনার আর্থিক পরিস্থিতি এবং আয়ের উত্সগুলি ঘনিষ্ঠভাবে দেখুন এবং কোন ধরণের বিনিয়োগ আপনাকে উপকৃত করবে তা খুঁজে বের করুন।

নিরাপদে ঝুঁকি নিন

সবাই জানে বিনিয়োগে ঝুঁকি আছে। কিন্তু প্রশ্ন হল আপনি কতটা ঝুঁকি নিতে পারবেন? প্রত্যেকের নিজস্ব চিন্তাভাবনা এবং অগ্রাধিকার রয়েছে যা তাদের ঝুঁকি নিতে ইচ্ছুক নির্ধারণ করে। তাই একজন ব্যক্তির ঝুঁকি বহন করার ক্ষমতা বিবেচনা করে কৌশলটি মানিয়ে নেওয়া প্রয়োজন। বিনিয়োগ করা সহজ হওয়া উচিত, যা আপনার দৈনন্দিন জীবনে কোনো সমস্যা সৃষ্টি করবে না। যখন একটি বিনিয়োগ নিদ্রাহীন রাতকে অবৈধ করে তোলে, তখন এই ধরনের বিনিয়োগে অর্থ ঝুঁকি নেওয়া বোকামি।

নিজেকে নির্দিষ্ট লক্ষ্য নির্ধারণ করুন

কোন বিনিয়োগ করার আগে, বিনিয়োগের উদ্দেশ্য এবং লক্ষ্য নির্ধারণ করা গুরুত্বপূর্ণ। আপনার বিনিয়োগের ধরন আপনার বিনিয়োগের উদ্দেশ্যের উপর নির্ভর করে। আপনার লক্ষ্য হতে পারে একটি গাড়ি কেনার জন্য বা একটি বাড়িতে ডাউন পেমেন্টের জন্য সঞ্চয় করার জন্য কম সময়ে লাভ করা। আপনি অবসর বা বাচ্চাদের শিক্ষার খরচের জন্য দীর্ঘমেয়াদী লাভের আশায়ও বিনিয়োগ করতে পারেন। অন্য কথায়, বিনিয়োগের বেশিরভাগই নির্ভর করে আপনি বিনিয়োগ থেকে যে রিটার্ন আশা করেন তার উপর।

বিনিয়োগ বিন্যাস

আপনার সমস্ত কষ্টার্জিত অর্থ এক চ্যানেলে বিনিয়োগ করবেন না। সর্বদা আপনার অর্থ বিভিন্ন জায়গায় বিনিয়োগ করার চেষ্টা করুন। এটি জেতার একটি বৃহত্তর সম্ভাবনা তৈরি করে এবং হারের ঝুঁকি অনেক কমে যায়। বর্তমান বাজারের অবস্থা বিবেচনা করুন এবং একাধিক সেক্টর বা সেগমেন্টে আপনার বিনিয়োগ ছড়িয়ে দিন।

একটি পৃথক স্তরে বিশ্লেষণ

যদিও মতামত এবং পরামর্শগুলি গুরুত্বপূর্ণ কারণ, তবে শুধুমাত্র এই কারণগুলির উপর ভিত্তি করে বিনিয়োগ করা ঠিক নয়। বন্ধুদের পরামর্শ, সর্বশেষ খবর, বিশেষজ্ঞ বা টিভি স্টেশনের পরামর্শ আপনাকে সঠিক বিনিয়োগের দিকে পরিচালিত করবে না। এখানে মূলধন লাভের কোন সহজ উপায় নেই, আপনাকে আপনার প্রয়োজন অনুসারে একটি পৃথক স্তরে সাবধানতার সাথে বিবেচনা করার পরে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করুন

যেহেতু মিউচুয়াল ফান্ড পেশাদারদের দ্বারা পরিচালিত হয়, সেগুলি নতুন এবং নবীন বিনিয়োগকারীদের জন্য উপযুক্ত হতে পারে। তবে প্রতারকদের থেকে সাবধান। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থার নির্দেশনা অনুসরণ করুন। মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের অনেক সুবিধা রয়েছে যেমন: B. বৈচিত্র্য যা সম্ভাব্য রিটার্ন সংরক্ষণ করে ঝুঁকির মাত্রা পরিচালনা করতে সাহায্য করে। পদ্ধতিগত বিনিয়োগ পরিকল্পনা একটি ভাল ধারণা হতে পারে কারণ এটি নিয়মিত সঞ্চয় বজায় রাখতে এবং বিনিয়োগকারীদের ধারাবাহিকতা নিশ্চিত করতে সহায়তা করবে।

ঝামেলামুক্ত থাকুন

ঋণের সাথে বিনিয়োগ আপনার আর্থিক অবস্থার উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে। এবং প্রয়োজনে ব্যবহার করার জন্য একটি পৃথক ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করতে ভুলবেন না। অন্য কথায়, বিনিয়োগের কারণে ঝামেলা এড়াতে চেষ্টা করতে হবে। তাই বিনিয়োগের সময় বাড়তি কোনো ঝুঁকি নেওয়া উচিত নয়।

নিজেই নিজের মেন্টর হোন

উল্লিখিত সম্পূর্ণ পর্যালোচনা প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, এখন আপনার নিজের সিদ্ধান্ত মূল্যায়ন করার সময় এসেছে। আপনার নিজের পছন্দগুলি মূল্যায়ন করে, আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন আপনার পছন্দগুলি যুক্তিসঙ্গত এবং জ্ঞানী কিনা। বিনিয়োগ করার আগে আপনাকে এটিই বিবেচনা করতে হবে। চলুন দেখে নেওয়া যাক যে কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগ করার আগে যে বিষয়গুলো বিবেচনা করতে হবে:

আপনি যে কোম্পানিতে বিনিয়োগ করতে যাচ্ছেন, সেই কোম্পানির পরিষেবা বা পণ্যটি গ্রাহকদের কাছে যথেষ্ট জনপ্রিয় কিনা এবং এটি লাভ করার জন্য যথেষ্ট বিক্রি করছে কিনা। কোম্পানির পরিচালক বা সিইওর বিশ্বাসযোগ্যতা পরীক্ষা করুন। যদি একজন কোম্পানির মুখপাত্রের ট্র্যাক রেকর্ড বিশ্বাসযোগ্য এবং বিশ্বাসযোগ্য হয়, আপনি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করতে পারেন। কোম্পানি বিনিয়োগকারীদের কাছে তার আয় সম্পর্কে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা বজায় রাখে কিনা তা জানা গুরুত্বপূর্ণ।

 

👉 এটিএম-এ ছেঁড়া টাকা পেলে কী করবেন

👉 ফিউচার পার্কের নতুন নিয়ম নীতি

👉 মোবাইল ফোন ব্যবহার করে নগদ আয়